Full width home advertisement

Post Page Advertisement [Top]

৫৬ ইঞ্চির ছাতি নিয়ে; লাদাখ সীমান্তে ভারতীয় সেনাদের কাছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আচমকাই কোন খবর ছাড়াই; ভারত চিন সীমান্তে পৌঁছে গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। কোনরকম আগাম ঘোষণা ছাড়াই; সীমান্তে লড়াই পরিস্থিতির মধ্যেই সেনাদের মাঝে পৌঁছে গেলেন মোদী। ইতিমধ্যেই লেহ লাদাখে; পৌঁছলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ১৫ জুন এই লাদাখের গালওয়ান সীমান্তে; ভারত-চিন সেনারা সংঘর্ষে শহিদ হয়েছিলেন ২০ ভারতীয় জওয়ান। তারপর থেকেই সীমান্তে যুদ্ধ পরিস্থিতি। আর তার মধ্যেই চিন সহ গোটা বিশ্বকে বার্তা দিতে; ভারত চিন সীমান্তে মোদী। এই মুহূর্তে সীমান্তের পরিস্থিতি কেমন আছে; কারোর কাছে না শুনে নিজেই চলে গেলেন লাদাখ সীমান্তে।সেনাবাহিনীর মনোবল বাড়াতেই; শুক্রবার সকালে সীমান্তে পৌছছেন তিনি। এখন সেনা ও অফিসারদের সঙ্গে কথা বলছেন; প্রধানমন্ত্রী মোদী। এদিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং এর যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সেটা বাতিল করে; প্রধানমন্ত্রী নিজেই চলে গেলেন লাদাখ সীমান্তে। চমকে গেছে চিন সহ গোটা বিশ্ব। আগে কথা ছিল যে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে লাদাখ পরিদর্শনে যাবেন; প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং ও সেনাপ্রধান মুকুন্দ নারভানে। তবে শুক্রবারের সেই সফর; বাতিলের সিদ্ধান্ত নেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী। শুক্রবার হঠাৎ গোটা পৃথিবীকে চমকে দিয়ে; ভারত চিন যুদ্ধ পরিস্থিতির মধ্যেই; লাদাখ পৌঁছুলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। সীমান্ত সমস্যার মধ্যে; কেন্দ্র সরকারের এই চমক; হয়ত আশা করেনি বেজিংও। প্রধানমন্ত্রী দেখা করেন; গালওয়ানে আহত সেনাদের সঙ্গে। সরাসরি সেনা অফিসারদের কাছ থেকে; সীমান্তের রিপোর্ট নেন। এতে ভারতীয় সেনার মনোবল; আরও অনেক বেড়ে গেল; বলেই জানাচ্ছেন সেনা কর্তারা। সরাসরি প্রধানমন্ত্রী সীমান্তের যুদ্ধ ক্ষেত্রে পৌঁছে যাচ্ছেন; ভারত আগে কোনদিন দেখে নি। প্রধানমন্ত্রী মোদী একটা দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন; এমনটাই মনে করছে আন্তর্জাতিক মহল।

collected link : thenewsbangla . com / pm-narendra-modi-on-ladakh-india-china-border-with-indian-army/

Bottom Ad [Post Page]